সুস্থ থাকার উপায়

বিভিন্ন দৈনিক সংবাদপত্র থেকে নেয়া চিকিৎসা সংক্রান্ত কিছু লেখা…

সুস্থ থাকার উপায় - বিভিন্ন দৈনিক সংবাদপত্র থেকে নেয়া চিকিৎসা সংক্রান্ত কিছু লেখা…

ব্রণ নিয়ে দুশ্চিন্তা

health.masudkabir.comত্বকের গঠন অত্যন্ত জটিল। এ জটিলতম ত্বকে একাধিক কারণেও বিভিন্ন রকমের সমস্যা দেখা দেয়। এর মধ্যে অন্যতম হলো ব্রণের সমস্যা। ব্রণ মূলত টিনএজারদের সমস্যা। এ বয়সে যখন মুখের সৌন্দর্যের প্রতি সবাই আকর্ষণবোধ ও প্রয়োজনীয়তা অনুভব করে ঠিক সে বয়সেই মুখে এই বিশ্রী গোটাগুলো দেখা দেয়, যা তাদের অন্যতম দুশ্চিন্তার কারণ হয়ে দাঁড়ায়। অথচ একটু সচেতন থাকলেই এ সমস্যা থেকে নিষ্কৃতি পাওয়া সম্ভব।

বিস্তারিত পড়ুন…

শরীরের নিজস্ব রোগ প্রতিরোধ ব্যবস্থা

ফুসফুস : এখানে গালমোলারি ম্যাক্রোফেজ নামে বিশেষ এক ধরনের কোষ থাকে যারা রোগ-জীবাণুকে ধরে খেয়ে ফেলে।

মুখ গহ্বর: মুখের লালা রোগ জীবাণুকে ধুয়ে নিয়ে যায়। শুধু তাই নয়, এই লালাতেও আছে সেই লাইমোজাইম নামের বিশেষ এক ধরনের এনজাইম যা কিনা বহু ব্যাকটেরিয়া মেরে ফেলে।

পাকস্থলি: পাকস্থলি থেকে নিঃসৃত হয় তীব্র হাইড্রোকোরিক এসিড যা অনেক ক্ষতিকর জীবাণুকে মেরে ফেলে।

বিস্তারিত পড়ুন…

ডায়াবেটিস ও চোখের ছানি

health.masudkabir.comচোখের লেন্স বা এর আবরণ (ক্যাপসুল) ঘোলা হয়ে যাওয়াকেই বলা হয় ছানি বা ক্যাটার্যাক্ট। আমাদের দেশে অন্ধত্বের অন্যতম প্রধান কারণ হচ্ছে চোখের ছানি। ছানির প্রথম অবস্থায় লেন্সের কিছু অংশ ঘোলাটে হয় এবং খুব ধীরে ধীরে দৃষ্টির প্রখরতা কমতে থাকে। প্রাথমিক অবস্থায় চশমার পাওয়ার পরিবর্তন করলে দৃষ্টির প্রখরতা বাড়ানো সম্ভব। তবে ক্রমে ক্রমে লেন্স আরও ঘোলাটে হতে থাকে এবং ২-৩ বছরের মধ্যে প্রায় সম্পূর্ণ লেন্সই ঘোলা হয়ে যায়। সাধারণ মানুষ এ অবস্থাকে ‘ছানি পাকা’ বলে অভিহিত করেন।

বিস্তারিত পড়ুন…

ভালো ঘুম চাই

ভালো ঘুম চাইঘুম। নির্ঘুম। বেশি ঘুম। ঘুমঘুম ভাব। ঘুমের অভাব। ঘুমের ব্যাঘাত। স্বপ্নের আঘাত। ঘুমিয়েও না ঘুমের ভাব। আনন্দের অভাব। দিনের বেলা তন্দ্রাচ্ছন্ন ভাব। কান্তিবোধ। দুর্বল মনোযোগ। খিটমিটে মেজাজ। এসব কিছুই ঘটে ঘুমের অভাবে, যাকে আমরা বলি নির্ঘুম বা অনিদ্রা।

সুনিদ্রার বিপরীত অনিদ্রা। ঘুম ভালো হলে তাকে বলে সুনিদ্রা। সুনিদ্রা হলে শরীর ও মন সতেজ থাকে। কাজে মন বসে। মনে আনন্দ ছড়িয়ে পড়ে। মেজাজ ভালো থাকে। ভালো ভালো কাজের পাহাড় গড়ে ওঠে।

বিস্তারিত পড়ুন…

বেগুনের গুন

health.masudkabir.comকোলেস্টেরল হলো চর্বিজাতীয় উপাদান, যা রক্তে জমে। যাদের রক্তে কোলেস্টেরল বেশি, তারা কোনো রকম দুশ্চিন্তা ছাড়াই খেতে পারে বেগুন। কারণ বেগুনে কোনো চর্বি বা কোলেস্টেরল নেই।

পাকস্থলী, কোলন, ক্ষুদ্রান্ত্র, বৃহদ্রান্ত্রের (এগুলো পেটের ভেতরের অঙ্গ) ক্যানসারকে প্রতিরোধ করে। যেকোনো ক্ষতস্থান শুকাতে সাহায্য করে বেগুন।
বেগুনে আয়রণও রয়েছে, যা রক্ত বাড়াতে সাহায্য করে। তাই রক্তশূন্যতার রোগীরাও খেতে পারে এই সবজি। এতে চিনির পরিমাণ খুবই সামান্য। তাই ডায়বেটিসের রোগী, হূদেরাগী ও অধিক ওজন সম্পন্নব্যক্তিরা নিঃসংকোচে খেতে পরে বেগুন।

বিস্তারিত পড়ুন…

শাকসবজি ক্যান্সার প্রতিরোধ করে

health.masudkabir.comআমরা সবাই জানি, শাকসবজি-ফলমূল স্বাস্থ্যের জন্য ভালো। আবার এও শোনা যায় যে সবজি ও ফলমূল ক্যান্সার প্রতিরোধ করে। কিন্তু সত্যিই কি শাকসবজি ও ফলমূল ক্যান্সার প্রতিরোধ করে? ইন্টারন্যাশনাল জার্নাল অব ক্যান্সারে বলা হয়েছে, সবজিতে রয়েছে QUERCETIN, RESERVATROL, GENISTEIN নামক পলিফেনল যৌগ। এই যৌগ উপাদানগুলো অগ্ন্যাশয়ের টিউমার বৃদ্ধিতে বাধা দেয়, ক্যান্সারের কোষগুলোকে ধ্বংস করে এবং শরীরের মধ্যে এক অঙ্গ থেকে অন্য অঙ্গে ক্যান্সার ছড়াতে দেয় না।

বিস্তারিত পড়ুন…

হাইড্রোসিল : পুরুষের একান্ত রোগ

maleহাইড্রোসিল হলো অণ্ডকোষের চার পাশে ঘিরে থাকা একটি পানিপূর্ণ থলি, যার কারণে অণ্ডথলি ফুলে যায়। এই পানিটা প্রকৃতপক্ষে জমে থাকে অণ্ডকোষের দুই আবরণের মাঝখানে। জন্মের সময় প্রতি ১০ জন পুরুষশিশুর মধ্যে প্রায় একজনের হাইড্রোসিল থাকে, তবে বেশির ভাগ হাইড্রোসিল চিকিৎসা ছাড়াই প্রথম বছরের মধ্যে মিলিয়ে যায়। আর পুরুষদের সাধারণত ৪০ বছরের ওপরে অণ্ডথলিতে প্রদাহ বা আঘাতের কারণে হাইড্রোসিল হতে পারে।

বিস্তারিত পড়ুন…

শীতের টিপস

health.masudkabir.comশীতে অনেকে সর্দিতে ভোগেন। এটি ঠাণ্ডা ও ধুলোবালুজনিত সর্দি। এ জন্য ঠাণ্ডা ও ধুলো এড়িয়ে চলতে হবে। প্রয়োজনে ট্যাবলেট সিটিরিজিন বা লিভোসিটিরিজিন জাতীয় ওষুধ দৈনিক একটা করে খাওয়া যেতে পারে। নাক দিয়ে অনবরত পানি ঝরলে নাক-কান-গলা বিশেষজ্ঞের পরামর্শে স্টেরয়েড ন্যাজোল ¯েপ্র ব্যবহার করা যেতে পারে। শীতের হাঁপানির তীব্রতা বাড়তে পারে। এ জন্য সালবিউটামল ইনহেলার বক্ষব্যাধি বিশেষজ্ঞের পরামর্শ অনুযায়ী ব্যবহার করতে হবে। প্রয়োজনে চিকিৎসকের সাথে আলাপ করে সমস্যার সমাধান খুঁজতে হবে। এ ছাড়া সকালে খালি পায়ে হাঁটবেন না। শীতের কাপড় জড়িয়ে রাখবেন গায়ে।

বিস্তারিত পড়ুন…

ক্যানসার প্রতিরোধ সহজেই

health.masudkabir.comদৈনন্দিন জীবনে অনেক ঝুঁকি এড়ানো যায়। বিজ্ঞানীরা দেখেছেন, জীবনের কিছু অভ্যাস ও চর্চা অনেক সময় ক্যানসারের কারণ হয়ে উঠতে পারে। এসব ঝুঁকি সহজেই এড়ানো সম্ভব।

খাবারে চর্বি কম, খুবই কম গ্রহণ করুন
চর্বিবহুল খাবার খেলে স্তন, মলান্দ্র ও প্রোস্টেট ক্যানসারের ঝুঁকি বেজায় বাড়ে। চর্বি থেকে ক্যালরি আহরণ, বাড়বে শরীরের ওজন, আর ব্যায়াম যদি না করেন, তাহলে আরও। দুধজাত দ্রব্য থেকে চর্বি কেটে ফেলুন, খাবারে কচি মেদহীন মাংস, মাছ থাকবে। ছাল ছাড়িয়ে তবে খাবেন চিকেন। চিনি ভরপুর মিষ্টি, মিঠাই, প্যাস্ট্রি বাদ দিন খাবারের তালিকা থেকে।

বিস্তারিত পড়ুন…

শীতে যত্ন নিন ত্বকের

health.masudkabir.comশীতকালে বাতাসের আর্দ্রতা কমে যায়; ফলে বায়ুমণ্ডল ত্বক থেকে পানি শুষে নেয়। এই শুষে নেয়ার কারণে ত্বক, ঠোঁট ও পায়ের তালু ফেটে যেতে থাকে। আমাদের দেহের ৫৬ শতাংশই হলো পানি। আর এর মধ্যে ত্বক নিজেই ধারণ করে ১০ ভাগ। ফলে ত্বক থেকে পানি বেরিয়ে গেলে ত্বক দুর্বল আর অসহায় হয়ে পড়ে। ত্বকের যেসব গ্রন্থি থেকে তেল আর পানি বের হয়ে থাকে, তা আর আগের মতো ঘর্ম বা তেল কোনোটাই তৈরি করতে পারে না। এতে ত্বক আরও শুকিয়ে যেতে থাকে।

বিস্তারিত পড়ুন…

শীতের অসুখ বিসুখ

health.masudkabir.comআমাদের দেশে ঋতু পরিবর্তনের সাথে সাথে কিছু রোগ দেখা দেয়, যা প্রতিরোধ সম্ভব যদি সঠিক সময়ে সঠিক ব্যবস্থা নেয়া হয় এবং স্বাস্থ্য সম্পর্কে আমরা সচেতন থাকি। নিয়মের একটু অনিয়ম হলেই শরীর নামের যন্ত্রটি বেঁকে বসে। সে আর স্বাভাবিক থাকতে চায় না। ফলে আমাদের বিভিন্ন রোগের সম্মুখীন হতে হয় অথবা পুরনো কোনো অসুখ নতুন করে দেখা দিয়ে সমস্যা তৈরি করে জীবনের ঝুঁকি হয়ে দাঁড়ায়।

বিস্তারিত পড়ুন…

কিডনি রোগ ও তার প্রতিকার

health.masudkabir.comবাংলাদেশের প্রায় দুই কোটি মানুষ কোনো না কোনোভাবে কিডনিজনিত রোগে আক্রান্ত। এক পরিসংখ্যানে জানা যায়, প্রায় ৩৫ লাখ শিশুই নানাবিধ কিডনিসংক্রান্ত রোগে ভুগছে। প্রতি বছর ১৫ থেকে ২০ হাজার লোক দ্রুতগতিতে কিডনি বিকল হয়ে মারা যায়। সারা বিশ্বে প্রায় ১৫ লাখ মানুষ বেঁচে যাচ্ছে ডায়ালাইসিস এবং কিডনি প্রতিস্থাপনের মাধ্যমে।

বিস্তারিত পড়ুন…

মোট 37 পৃষ্ঠা এর মধ্যে 19« প্রথম পাতা...10...1718192021...30...শেষ পাতা »