সুস্থ থাকার উপায়

বিভিন্ন দৈনিক সংবাদপত্র থেকে নেয়া চিকিৎসা সংক্রান্ত কিছু লেখা…

সুস্থ থাকার উপায় - বিভিন্ন দৈনিক সংবাদপত্র থেকে নেয়া চিকিৎসা সংক্রান্ত কিছু লেখা…

গর্ভাবস্থায় ভাইরাস সংক্রমণ

virusভাইরাস সংক্রমণ যেকোনো সময়েই হতে পারে। তবে গর্ভাবস্থায় মায়ের ভাইরাস সংক্রমণ শিশুর শারীরিক গঠনের ক্ষতি করতে পারে। গর্ভাবস্থায় যেসব ভাইরাস সংক্রমণ বেশি হয়, তার মধ্যে রয়েছে হাম, জার্মান হাম, জলবসন্ত প্রভৃতি।

জলবসন্ত এইচজেডভি ভাইরাস দিয়ে সংক্রমিত হয়। রোগজীবাণু নিঃশ্বাস-প্রশ্বাসের সাথে দেহের মধ্যে প্রবেশ করে। দু-তিন সপ্তাহের মধ্যে রোগের লক্ষণ প্রকাশ পায়। প্রথমে সামান্য সর্দি, গা ম্যাজম্যাজ করা, অল্প জ্বর দেখা দেয়।

বিস্তারিত পড়ুন…

নিপাহ ভাইরাসের ভয়াবহতা

health.masudkabir.comনিপাহ ভাইরাস কি?
নিপাহ ভাইরাস একটি Emerging zoonotic ভাইরাস, যা পশু-পাখি থেকে মানুষে ছড়ায়। ভাইরাসটি মস্তিষ্ক বা শ্বসনতন্ত্রে প্রদাহ তৈরির মাধ্যমে মারাত্মক অসুস্থতার সৃষ্টি করে। এটি Henipavirus জেনাসের অন্তর্গত একটি ভাইরাস।

নিপাহ ভাইরাসে এনসেফালাইটিস নামক মস্তিষ্কের প্রদাহজনিত রোগ হয়। এ রোগটি হার্পিস ভাইরাস (herpes simplex), ফ্লাভিভাইরাস (Flaviviruses) সহ অন্যান্য ভাইরাস দ্বারাও হতে পারে। তবে বাংলাদেশ সরকারের স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা অনুসন্ধান ও পরীক্ষার মাধ্যমে নিশ্চিত হয়েছেন, নিপাহ ভাইরাস সংক্রমণের ফলেই এ রোগ ছড়িয়েছে।

বিস্তারিত পড়ুন…

শীতে স্বাস্থ্য সুরক্ষা

শীতকালে আমাদের অনেকেরই বেশ কিছু স্বাস্থ্য সমস্যা হয়ে থাকে। একটু সতর্ক থাকলে এগুলো যেমন প্রতিরোধ করা যায়, তেমনি আক্রান্ত হয়ে গেলে প্রতিকারও করা যায়। তবে সমস্যাগুলো কষ্ট দিতে পারে, ভোগাতেও পারে বেশ।

বিস্তারিত পড়ুন…

খাদ্যে ভেজাল ও স্বাস্থ্যঝুঁকি

মানুষের জীবনধারণের জন্য খাবার একটি অত্যাবশ্যকীয় উপাদান। মায়ের গর্ভে যখন একটি শিশুর জন্মের প্রক্রিয়া শুরু হয়, তখন থেকে পরবর্তীকালে বেড়ে ওঠা এবং মৃত্যু পর্যন্ত মানুষের জন্য খাবার প্রয়োজন। সৃষ্টির আদিকাল থেকে চলছে মানুষের খাবারের পেছনে অবিরাম ছুটে চলা।

বিস্তারিত পড়ুন…

ভাইরাল ফিভার

ভাইরাল জীবাণুর সংক্রমণের কারণে যে জ্বর হয় তাকে ভাইরাল ফিভার বলে। জ্বরের শুরুতে এর প্রকৃতি নিরূপণ করা না গেলেও পরে পরীক্ষায় যদি দেখা যায় রক্তে ব্যাকটেরিয়া পাওয়া যাচ্ছে না, তখন এই জ্বরকে ভাইরাল ফিভার বলে চিহ্নিত করা হয়।

বিস্তারিত পড়ুন…

রোগের নাম চিকুনগুনিয়া

ইদানীং অনেক রোগী প্রায়ই অভিযোগ করছেন যে তাঁদের ডেঙ্গু জ্বর হয়েছিল, কিন্তু জ্বর সেরে গেলেও শরীরটা ভালো যাচ্ছে না। ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত রোগী সাধারণত পাঁচ থেকে সাত দিনের মধ্যেই সম্পূর্ণ ভালো হয়ে যায়, অথচ দেখা যাচ্ছে জ্বর চলে গেলেও রোগী আরও দীর্ঘদিন অসুস্থ ও দুর্বল বোধ করছেন। শরীরের বিভিন্ন অংশে, বিশেষ করে গিঁটে গিঁটে ব্যথা কিছুতেই যাচ্ছে না। আসলে ডেঙ্গু হিসেবে ধরে নেওয়া হলেও এ রোগটি সম্ভবত ডেঙ্গু জ্বর নয়, বরং অন্য একটি ভাইরাসজনিত জ্বর, যাকে বলে চিকুনগুনিয়া।

বিস্তারিত পড়ুন…

হেপাটাইটিস-বি ও চিকিৎসা

আমাদের শিক্ষিত সমাজে এখন হেপাটাইটিস-বি ভাইরাস সচেতনতা ও আতঙ্ক দুই-ই বেশ বেড়েছে। হেপাটাইটিস-বি ভাইরাসের ব্যাপারে সচেতনতা নিঃসন্দেহে সবার জন্যই কল্যাণকর। আমাদের দেশে হেপাটাইটিস-বি ভাইরাস অ্যাকিউট হেপাটাইটিস বা জন্ডিসের উল্লেখযোগ্য কারণ এবং ক্রনিক বা দীর্ঘস’ায়ী লিভার ডিজিজের প্রধান কারণ। এই ভাইরাস রক্তের মাধ্যমে অর্থাৎ দূষিত রক্ত সঞ্চালনের ফলে দূষিত ইনজেকশনের সুচের মাধ্যমে, সেলুনের ক্ষুরের মাধ্যমে এবং আক্রান্ত ব্যক্তির সাথে যৌন মিলনের মাধ্যমে বিস্তার লাভ করে।

বিস্তারিত পড়ুন…