সুস্থ থাকার উপায়

বিভিন্ন দৈনিক সংবাদপত্র থেকে নেয়া চিকিৎসা সংক্রান্ত কিছু লেখা…

সুস্থ থাকার উপায় - বিভিন্ন দৈনিক সংবাদপত্র থেকে নেয়া চিকিৎসা সংক্রান্ত কিছু লেখা…

ভাইরাল ফিভার

ভাইরাল জীবাণুর সংক্রমণের কারণে যে জ্বর হয় তাকে ভাইরাল ফিভার বলে। জ্বরের শুরুতে এর প্রকৃতি নিরূপণ করা না গেলেও পরে পরীক্ষায় যদি দেখা যায় রক্তে ব্যাকটেরিয়া পাওয়া যাচ্ছে না, তখন এই জ্বরকে ভাইরাল ফিভার বলে চিহ্নিত করা হয়।

বিস্তারিত পড়ুন…

রোগজীবাণু প্রতিরোধে ডাব

ডাবের জলের ব্যপারে নতুন করে কিছু বলার নেই। সুস্বাদু এই পানীয়টি গোটা এশিয়া ও লাতিন আমেরিকার মানুষের কাছে এটি সমান প্রিয়। তবে কেবল পানীয় হিসাবেই নয়, ডাবের পানির মধ্যে বিজ্ঞানীরা ওষুধিগুণও খুঁজে পেয়েছেন। ডায়রিয়াতে এর পানি উপকার দেয়। এটি হার্টের পক্ষেও ভালো।

বিস্তারিত পড়ুন…

রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ এবং লাইফষ্টাইল

মানবদেহের রক্তচাপ আদর্শ মাত্রায় থাকা অত্যাবশ্যক। দৈহিক ও মানসিক অস্থিরতা ও কর্মহীনতা ছাড়াও উচ্চ রক্তচাপের কারণে হার্ট এ্যাটাক, হার্ট ফেইলর, কিডনি ফেইলর, দৃষ্টিহীনতা ও ষ্ট্রোক হতে পারে। ব্যক্তি, পরিবার, সমাজ ও দেশের জন্য এসব জটিলতা বিরাট বোঝা। বিদ্যমান স্বাস্থ্য ব্যবস্থায় উচ্চ রক্তচাপের জটিলতার চিকিত্সা ব্যয়বহুল এবং কঠিন।

বিস্তারিত পড়ুন…

অস্টিওপোরেসিস

বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে হাড় দুর্বল হতে থাকে। তবে কিছু মানুষ বিশেষ করে মহিলাদের হাড় এত দ্রুত ক্ষয় হয় যে তাদের পুরো দেহের হাড়ে অজস্র দাগ দেখা দেয়। অস্টিওপোরেসিস হাড়ের এমন এক রোগ, যাতে আক্রান্ত হলে উরু, মেরুদন্ড ও বাহুর সামনের অংশ চির ধরতে পারে। এক হিসাবে দেখা যায়, ২০৫০ সাল পর্যন্ত পৃথিবীতে মোট অস্টিওপোরেসিস রোগীর ৫০ শতাংশের বাস হবে এশিয়ায়। কেবলমাত্র সিঙ্গাপুরেই ১৯৯৮ সালে উরুতে চির ধরার ঘটনা ১৯৬০ সালের তুলনায় মহিলাদের ক্ষেত্রে ৫ শতাংশ এবং পুরুষদের ক্ষেত্রে ১.৫ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে।

বিস্তারিত পড়ুন…

প্রস্টেট ভালো রাখবেন কিভাবে

প্রস্টেট গ্রন্থি মূত্রথলির সঙ্গে সংযুক্ত একটি গ্রন্থি। এই গ্রন্থটি শুধু পুরুষের থাকে। তাই প্রষ্টেট সমস্যা মানেই পুরুষের একটি  িবব্রতকর সমস্যা। অনেক ক্ষেত্রে প্রষ্টেট সমস্যা থেকে প্রস্টেট ক্যান্সার পর্যন্ত হতে পারে। তাই যাদের বয়স ৪০-৫০ পেরিয়েছে তাদের অবশ্যই বছরে অন্তত: দু’বার প্রস্টেট সম্পর্কে জানতে পিএসএ বা প্রস্টেট স্পেসিফিক এন্টিজেন পরীক্ষা করা উচিত।

বিস্তারিত পড়ুন…

সাইক্লিং ভাল ব্যায়াম

সাইকেল অর্থাত্ বাইসাইকেল চালানো হাঁটা এবং সাতার কাটার মত একটি উত্কৃষ্ট ব্যায়াম। নিয়মিত সাইকেল চালানো শরীরের জন্য খুবই উপকারী। এতে রক্তের কলেস্টেরলের মাত্রা কমে। রক্তচাপও কমে। সপ্তাহে ৩৫ কিলোমিটারের মত পথ সাইকেল চালালে করোনারি হূদরোগের সম্ভাবনা কমে যায় ৫০ শতাংশেরও বেশি।

বিস্তারিত পড়ুন…

মূত্রতন্ত্রের প্রদাহ : সচেতন হোন

মূলত কিডনি ও কিডনি থেকে যেসব নালি প্রস্রাবের থলিতে চলে গেছে এবং যার মাধ্যমে প্রস্রাবের নির্গমন হয়, সেই মূত্রপথের সমন্বয়ে মূত্রতন্ত্র গঠিত। জীবাণু যদি এই তন্ত্রে প্রবেশ করে সংক্রমণ ঘটায়, তাহলে সে অবস্থাকে বলা হয় মূত্রতন্ত্রের প্রদাহ বা ইউরিনারি ট্র্যাক্ট ইনফেকশন।

বিস্তারিত পড়ুন…

শরীরচর্চার অসাধারণ প্রভাব

সাধারণত শরীরচর্চা বা ব্যায়াম করা হয় দেহকে সুগঠিত করার জন্য বা হৃদরোগ, ডায়াবেটিস ও ক্যান্সারের মতো রোগগুলোকে প্রতিহত করা বা নিয়ন্ত্রণে রাখার জন্য। কিন্তু কখনও কি বুদ্ধিবৃত্তিক বা মানসিক উন্নতির জন্য ব্যায়াম করার কথা ভেবে দেখেছেন? হার্ভার্ড মেডিকেল স্কুলের সাইকিয়াটিস্ট জন রেটির ভাষায়, মনকে উত্ফুল্ল রাখা, স্মৃতিশক্তি ও আত্মস্থ করার শক্তিকে আরও বাড়াতে মস্তিষ্ককে সাহায্য করার জন্য ব্যায়ামই সবচেয়ে ভালো কর্মপন্থা হতে পারে।

বিস্তারিত পড়ুন…

উচ্চ রক্তচাপ ও করণীয়

উচ্চ রক্তচাপ প্রায়ই একটি স্থায়ী রোগ হিসেবে বিবেচিত। এর জন্য চিকিত্সা ও প্রতিরোধ দুটিই জরুরি। তা না হলে বিভিন্ন জটিলতা, এমনকি হঠাত্ মৃত্যুরও ঝুঁকি থাকে।

বিস্তারিত পড়ুন…

স্ট্রোক: মস্তিস্কে রক্তক্ষরণ

মস্তিস্কের যে সকল জায়গায় রক্তক্ষরণ হয় তন্মধ্যে সাব অ্যারাকনয়েড স্পেস অন্যতম।  সাবঅ্যারাকনয়েড রক্ত ক্ষরণ বলতে আমরা বুঝি মস্তিস্ক ও তার আবরণীর মধ্যবর্তী স্থানে রক্তক্ষরণ। এই জায়গাটিকে সাবঅ্যারাকনয়েড স্পেস বলা হয়।

বিস্তারিত পড়ুন…

শিশুর মানসিক বিকাশে

শিশু বেড়ে ওঠার পাশাপাশি বিকশিত হয় তার মনোজগত্। তার জ্ঞানের পরিধি ধীরে ধীরে বাড়তে থাকে। সে ক্রমশ: আবেগ নিয়ন্ত্রণ করতে শেখে; মানুষের সাথে কথা বলা, মেলামেশা ও কাজ-কর্মে দক্ষতা অর্জন করে ধাপে ধাপে। তার চিন্তাচেতনায় আগে অগ্রগতি-এ হলো শিশুর সামগ্রিক বিকাশ।

বিস্তারিত পড়ুন…

প্রোস্টেট স্পেসিফিকেশন এন্টিজেন

উচ্চ ঝুঁকিসম্পন্ন লোক যাদের পরিবারে প্রোস্টেট ক্যান্সার-এর ইতিহাস আছে তাদের ৪৫ বছর বয়স থেকেই পিএসএ পরীক্ষা করা উচিত্। যাদের পরিবারে প্রস্টেট ক্যান্সার রোগীর ইতিহাস নেই এবং বাড়তি ঝুঁকিও নেই তাদের ৫০ বছর  থেকে পিএসএ পরীক্ষা করা উচিত্।

বিস্তারিত পড়ুন…

মোট 4 পৃষ্ঠা এর মধ্যে 11234