সুস্থ থাকার উপায়

বিভিন্ন দৈনিক সংবাদপত্র থেকে নেয়া চিকিৎসা সংক্রান্ত কিছু লেখা…

সুস্থ থাকার উপায় - বিভিন্ন দৈনিক সংবাদপত্র থেকে নেয়া চিকিৎসা সংক্রান্ত কিছু লেখা…

রাতে শোবার আগে আহার

আহার বিহার দুটোই নিদ্রার উপর বেশ প্রভাব ফেলে। রাতে শোবার আগে সঠিক খাদ্য খেলে সুনিদ্রা হয়, আবার যেসব খাদ্য খেলে নিদ্রার ব্যাঘাত হয় তাও জানা ভালো।

ট্রিপটোফ্যান সম্বৃদ্ধ খাবার বেছে নিন, দুধ, দুধজাত দ্রব

উষ্ণ দুধ পানে স্বপ্নরাজ্যে যাবার পথ সুগম হয় জানি আমরা। কেন, জানি। দুধ ও দুধজাত দ্রব্যে রয়েছে প্রচুর ট্রিপটোফ্যান, একটি নিদ্রাকর্ষক বস্তু। পোলট্রি, মধু, কলা ইত্যাদিতে আছে এই এমিনো এসিড ট্রিপটোফ্যান।

শ্বেতসার খাদ্য খাবেন যদি দুধ নাও খেতে পারে

শ্বেতসার খাদ্যে খেলে এতে বাড়ে রক্তে ট্রিপটোফ্যান মান। এক বাটি মুড়ি/খই ও দুধ বা দধি ও ক্যাকারস বা রুটি ও পনির সোবার আগে খেলে তোফা ঘুম হয়।

রাতে সোবার আগে সামান্য নাস্তা প্রশ্রয় দেয়া যায়

নিঘুর্ম রাত কাটে। রাতে সামান্য খাবার, ঘুমাবার আগে পেটে দিলে ঘুম হবে। তবে একে ভোজের সমতুল্য করা ঠিক হবে না। সামান্য নাস্তা। বেশি খেলে বরং বদ হজম, পেটভার হয়ে ঘুমের ব্যাঘাত ঘটতে পারে।

ফাস্টফুড, বার্গার, ভাজা, ফ্রেঞ্চফ্রাই খাওয়া যাবেনা

চর্বিসম্বৃদ্ধ খাবার বাদ দিলে ভালো। যত কম খাওয়া যায়। গবেষণায় দেখা গেছে যারা চর্বিযুক্ত খাবার বেশি খান তারা যে শুধু স্থূল হন তাই নয় তাদের নিদ্রাচক্রও ছিন্ন বিছিন্ন হয়ে যায়।

ক্যাফিন থেকে সাবধান

অবাক হবার কিছু নেই। বিকেলে বা সন্ধ্যায় এক কাপ চা বা কফি পান করলে রাতের ঘুমে ব্যাঘাত ঘটতে পারে। মাঝারি মান ক্যাফিনেও ঘুমের সমস্যা হয়। কেবল চা, কফি কেন? চকোলেট, কোলাতেও আছে ক্যাফিন। ওষুধেও থাকতে পারে ক্যাফিন। ব্যথা নাসক ওষুধ, ওজন কমানোর ওষুধ, মুত্রবর্ধক ওষুধ, ঠান্ডা-সর্দির ওষুধে থাকতে পারে ক্যাফিন। চেক করে নেয়া ভালো। রাতে মদ্যপান করা অনুচিত। ঘুমের খুব সমস্যা হয়। এমনিতেই মদ্যপান খুব খারাপ স্বাস্থ্যের জন্য। ধূমপান আরো খারাপ। অবশ্য বর্জনীয়। এটি বড়া রকমের বদভ্যাস।

ঝাল-মসলা খম খাওয়া ভালো

রাতে ভরপেট খাওয়া খুব খারাপ। আর তেল-ঝাল-মসলা সম্বৃদ্ধ খাবার আরও খারাপ স্বাস্থ্যের জন্য। অস্বস্থিও হতে পারে। ঘুমের সময় পাকতন্ত্র ধীর হয়ে যায় তাই ঝাল-মসলাযুক্ত খাবার খেলে বুক জ্বলা হতে পারে। ভরপেট খাবার খেতে হলে ঘুমাবার ৪/৫ ঘন্টা আগে খাবার শেষ করা উচিত।

ঘুমাবার আগে প্রোটিন খাবার খেতে হয় কম করে

এটিকন ডায়েটকে রাতে অনুস্বরণ নয়। দিবাকালীন চলায় প্রোটিন আহার বড় প্রয়োজনীয় হলেও রাতে ঘুমের আগে খাওয়া উচিত নয়। প্রোটিন সম্বৃন্ধ খাবার হজম বড় কঠিন। রাতে তাই শোবার আগে প্রোটিন খাবার না খেয়ে একগ্লাস গরম দুধ বড়ো ভালো।

রাত ৮টার পর পানি পান নয়

সারাদিন প্রচুর পানি পান করুন। থাকুন সজল। শরীরের জন্যও ভালো। কিন্তু শোবার বেশ আগে থেকে আর এত পানি পান ভালো নয়। কেন যেতে হবে টয়লেটে বারবার ঘুমের ব্যাঘাত ঘটাতে।

ধূমপান অবশ্যই শিথিল করেনা মন ও শরীর। ঘুমের বড্ড ব্যাঘাত ঘটায় ধূমপান। তাই ঘুমাবার আগে কখনই ধূমপান করা উচিত নয়।