সুস্থ থাকার উপায়

বিভিন্ন দৈনিক সংবাদপত্র থেকে নেয়া চিকিৎসা সংক্রান্ত কিছু লেখা…

সুস্থ থাকার উপায় - বিভিন্ন দৈনিক সংবাদপত্র থেকে নেয়া চিকিৎসা সংক্রান্ত কিছু লেখা…

যে রোগে স্মৃতিশক্তি নষ্ট হয়

অতি পরিচিতজন, দীর্ঘ দিন দেখা-সাক্ষাৎ নেই, হঠাৎ করেই রাস্তায় বা বাজারে দেখা হলো, উষ্ণ আন্তরিকতা বিনিময় হলো, পরিশেষে লোকটি চলেও গেলেন, কিন্তু আপনি শত চেষ্টা করেও তার নাম মনে করতে পারলেন না; যেকোনো বয়সেই এমনটি হতে পারে এটা মারাত্মক রোগ নয়, কিন্তু অনেক সময় এটা মতিভ্রষ্ট বা মাথা খারাপের পূর্বলক্ষণ হিসেবেও দেখা দিতে পারে।

বিভিন্ন প্রেক্ষাপটে অনেকেই অনেক কিছু স্মরণ রাখতে পারেন না বা চেষ্টা করেন না বিধায় এমনটি হয়Ñ তবে আপনি আপনার নিজের বাড়ি চিনতে ভুল করছেন। দুধ চুলার ওপরে দিয়ে রেখেছেন কখন মনে নেই। আপনার কাজকর্মে যদি মারাত্মক ভুল প্রতিনিয়তই হতে থাকে তবে বুঝতে হবে আপনি মতিভ্রষ্ট রোগে আক্রান্ত হতে চলেছেন দ্রুত একজন মানসিক রোগবিশেষজ্ঞকে দেখাতে হবে। ৬৫ বছর বা তদূর্ধ্ব যে ব্যক্তি এ রোগে আক্রান্ত হন বয়সজনিত কারণে, এর নাম অ্যালজেইমার্স রোগ। এই রোগে আপনার স্মৃতি বা স্মরণশক্তি লোপ পেতে থাকে।

নিচে ভুলোমন নিয়ে সংক্ষেপে কিছু আলোকপাত করা হলো। হঠাৎ কিছু মনে করতে না পারা, বেশির ভাগ ক্ষেত্রে যেসব কারণে হয় তার চিকিৎসা সম্ভব।

আপনি কর্মক্ষেত্রে বা পারিবারিক কোনো সমস্যার কারণে মানসিক অশান্তির মধ্যে আছেন দুর্দিন, কষ্ট ও বিপদের মধ্যে থাকাকালীন আপনি ভুলোমনা হতে পারেন। সাময়িকভাবে স্মরণশক্তি কমে যাবে। আপনার অশান্তিজনিত কারণে ব্রেনের মধ্যে ফ্রি রেডিক্যাল নামক একটি রাসায়নিক উপাদান বেশি উৎপন্ন হয়, যা স্মরণশক্তি কমিয়ে দিতে পারে। আবার যারা দীর্ঘমেয়াদি মানসিক চাপের মধ্যে জীবন যাপন করছেন, তাদের দেহে কর্টিসোল নামক একজাতীয় হরমোন বেশি তৈরি হয়, সেটাও স্মরণশক্তি সাময়িকভাবে লোপের কারণ হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে।

বিষাদগ্রস্ততা : এটাও ব্রেনের মধ্যে কর্টিসোল বৃদ্ধিজনিত কারণ হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে, কিন্তু অনেক বিশেষজ্ঞও এ ব্যাপারে দ্বিমত পোষণ করেছেন এবং তারা মনে করেন, যারা ডিপ্রেশন বা মানসিক বিষাদগ্রস্ত থাকার কারণে কোনো বিষয়ে গভীরভাবে মনোযোগ দিতে পারেন না বিধায়ই সাময়িকভাবে কোনো কিছু স্মরণ করতে পারেন না। এটাকে ভুলে যাওয়া বলা যায় না। এটাকে মনোযোগের স্বল্পতা বলা যায়।

মাসিক (ঋতুস্রাব) বন্ধ হলে অনেক মহিলা অবিবেচকের মতো এমন আচরণ করেন, যা নিজের মর্যাদা বা পরিস্থিতির সাথে মোটেই মানানসই নয়। এমন হওয়ার সঠিক কারণ কী, চিকিৎসাশাস্ত্রে বিষয়টি এখন পর্যন্ত স্পষ্ট নয়; তবে অনেকের মতে, হরমোনের ভারসাম্যহীনতার কারণে এমন হয়।

হাইপো থাইরয়েডিজম নামক (হরমোনজনিত) একটি রোগের কারণেও উপরি উক্ত সমস্যার সৃষ্টি হতে পারে। রক্ত পরীক্ষা করে সারা জীবনের জন্য হরমোন সেবন করানো হয়।

যারা বেশি বেশি মদপান করেন তাদের স্মৃতিভ্রম হতে পারে। হঠাৎ মাথায় আঘাতজনিত কারণে মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণ (স্ট্রোক) হয়ে এমন হতে পারে।

যদি কোনো কারণে হঠাৎ করেই আপনার স্মৃতিশক্তি লোপ পেতে শুরু করে তবে দ্রুত চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।

%d bloggers like this: