সুস্থ থাকার উপায়

বিভিন্ন দৈনিক সংবাদপত্র থেকে নেয়া চিকিৎসা সংক্রান্ত কিছু লেখা…

সুস্থ থাকার উপায় - বিভিন্ন দৈনিক সংবাদপত্র থেকে নেয়া চিকিৎসা সংক্রান্ত কিছু লেখা…

পাঁচমিশালি স্বাস্থ্যকথা

ভুল স্বীকারে মানসিক চাপ কমে
ভুল করে না এমন মানুষ নেই। কিন্তু ভুল করে তার ওপর অবিচল থাকলে মানসিক চাপ বাড়ে। তাই ভুল স্বীকার করে নিজের মনোবল বাড়ান। যদি আপনি মানসিক চাপ কমাতে চান, তাহলে এটা একটা বড় প্রতিষেধক। তাই একটা ভুল ধারণাকে সমর্থন করে কখনো মানসিক চাপ বাড়াবেন না। মনে রাখবেন, ভুল স্বীকার করলে মানসিক সুস্থতা বাড়ে এবং এটা মহত্ত্বের পরিচয়ও।

রাগ করলে কী হয়
রাগ করেন এমন মানুষের সংখ্যা খুবই কম। কিন্তু অনেকেই জানে না রাগ করলে তার কী হয়। রাগের কারণে যেসব শরীরবৃত্তীয় পরিবর্তন হয় তা হলো :
১. রক্তচাপ বেড়ে যায়; ২. হার্টের গতি বেড়ে যায়; ৩. মাথায় রক্তচলাচল বেড়ে যায়; ৪. শরীর গরম হয়ে যায়; ৫. চোখমুখ লাল হয়ে যায়; ৬. শরীরের পেশি টানটান হয়; ৭. কোনো কোনো সময় ব্রেন স্ট্রোকের মতো ঘটনাও ঘটে।
তাই রাগ হলে মুসলিমরা পড়তে পারেনÑ আউজুবিল্লাহি মিনাশ শায়তানির রাজিম।

মেয়েদের ঋতুস্রাবের সময় করণীয়
মানুষের জীবনে আহার, নিদ্রা, মলমূত্র ত্যাগ যে রকম স্বাভাবিক ঘটনা, মেয়েদের প্রতি মাসে ঋতুস্রাবও সে রকম একটি স্বাভাবিক ঘটনা। তাই এতে ভয়, শঙ্কা বা বিচলিত হওয়ার কোনো কারণ নেই। এ সময় নিজেকে রোগগ্রস্ত ভাবার কোনো কারণও নেই। ঘরের সাধারণ কাজ বা স্কুল, কলেজ, অফিস বা অন্যান্য সাধারণ কাজ স্বাভাবিকভাবেই করা ভালো। তবে খুব বেশি দৌড়ঝাঁপ বা পরিশ্রমসাধ্য কাজ বা খেলাধুলা না করাই ভালো। এ সময় প্যাড বা স্যানিটারি ন্যাপকিন ব্যবহার করা ভালো।

গ্রামদেশে পুরনো কাপড় প্যাড হিসেবে ব্যবহার করা চলে। তবে তা পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখতে হবে এবং প্রয়োজনমতো বদলাতে হবে। যোনির ভেতর ব্যবহৃত ট্যামপন অবিবাহিত মেয়েদের ব্যবহার না করাই ভালো। এ সময় পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন থাকতে হবে এবং রুচিকর খাবার খেতে হবে। মনকে প্রফুল্ল রাখার চেষ্টা করতে হবে। মানসিক চাপ এড়িয়ে চলতে হবে। প্রয়োজনীয় বিশ্রাম গ্রহণ করতে হবে।