সুস্থ থাকার উপায়

বিভিন্ন দৈনিক সংবাদপত্র থেকে নেয়া চিকিৎসা সংক্রান্ত কিছু লেখা…

সুস্থ থাকার উপায় - বিভিন্ন দৈনিক সংবাদপত্র থেকে নেয়া চিকিৎসা সংক্রান্ত কিছু লেখা…

কম ক্যালোরিযুক্ত খাবার জীবনীশক্তি বাড়ায়

শরীর সুস্থ রাখতে অনেকেই বয়স বাড়ার সঙ্গে চিনি খাওয়া কমিয়ে দেন। রান্নায় তেল, ঝাল মসলার মাত্রাও কমিয়ে দেন। এর সঙ্গে ডায়েট চার্ট মেনে খাদ্য গ্রহণ করেন। তবে জানেন কি কম ক্যালোরিযুক্ত খাবারের মধ্যে রয়েছে জীবনীশক্তি? যা আপনার আয়ুকে নিমিষেই বাড়িয়ে দেবে।

আপনি লাভ করবেন কঠিন রোগের সঙ্গে যুদ্ধ করার শক্তি। বাঁচতে পারবেন বহুদিন। কিছুদিন আগেই ম্যাসিডনের উইসকনসিন ইউনিভার্সিটির গবেষকরা এ বিষয়টি নিয়ে গবেষণা করেছিলেন। তাদের গবেষণায় প্রমাণিত হয়েছে, পুষ্টিকর লো ক্যালোরিযুক্ত খাবার যে কোনো কঠিন রোগের হাত থেকে মানুষকে বাঁচায়। যারা লো ক্যালোরিযুক্ত খাবার গ্রহণ করেন, বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে তাদের ক্যান্সার, হৃদরোগ, ডায়াবেটিস এবং মস্তিষ্ক সংক্রান্ত রোগ হওয়ার সম্ভাবনা কমে যায়।

চা পান করুন চিনির মাত্রা কমিয়ে
সকালে উঠে ঘুমের নেশা কাটাতে চায়ের কাপে চুমুক দেয়া, অফিসে গিয়ে মাথা ধরা কমাতে আরেক কাপ চা। দুপুরের খাওয়ার পর আলসেমি কাটাতে চা পান। বিকালে সিঙ্গারার সঙ্গে চা। এরকম করে দিনের মধ্যে দেখতে গেলে অনেকেই চার থেকে পাঁচবারের বেশি চা পান করে ফেলেন। কিন্তু চা পান শরীরের পক্ষে কতটা ক্ষতিকর? চা পানের সময় অবশ্য এ নিয়ে কেউই ভাবেন না। তবে সমীক্ষা বলছে, বেশি চা পান শরীরের জন্য একেবারেই খারাপ নয়। তবে সেক্ষেত্রে চা-তে চিনির পরিমাণটা যাতে কম থাকে সেটা খেয়াল রাখা উচিত। চা শরীরে পানির অভাব পূরণ করে। দিনে আট কাপ চা খাওয়া যেতে পারে। গবেষকরা প্রমাণ করেছেন, গ্রিন টি শরীরের জন্য ভীষণ উপকারী। গ্রিন টি ক্যান্সার প্রতিরোধ করে। তবে গর্ভবতী মহিলা বা শিশুদের ক্ষেত্রে চা খাওয়ার সময়টা নির্দিষ্ট রাখা উচিত, যাদের শরীরে আয়রনের পরিমাণ কম থাকে তারা খাবার খাওয়ার ১ ঘণ্টা পর চা পান করুন।